• বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:০১ অপরাহ্ন
শিরোনাম
নাচোল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষক নুরুল হক ফনি মাস্টার এর মৃত্যু। নাচোল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষক নুরুল হক ফনি মাস্টারের মৃত্যু। নাচোল উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ১০জনের মনোনায়নপত্র জমা। নাচোল উপজেলা পরিষদ নির্বাচন চেয়ারম্যান পদে ৩.ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জনের মনোনয়ন পত্র জমা গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় বিল্লাল হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবীতে স্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন “ঢাকাস্থ নাচোল উপজেলা সমিতির নাচোলে ঈদ পুনর্মিলনী” ঢাকাস্থ নাচোল সমিতির সভাপতিকে সংবর্ধনা গোমস্তাপুরে বাংলা নববর্ষ পালন শিবগঞ্জে শেখ হাসিনার জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ফুটবল টুর্নামেন্ট ও পুরস্কার বিতরণ চাঁপাইনবাবগঞ্জ ভেটেরিনারি এসোসিয়েশনের উদ্যোগে ঈদ পূর্ণমিলনী

নাচোল থানার ওসিসহ এসআইয়ের বিরুদ্ধে স্মারকলিপি প্রদান

Reporter Name / ১৫৪ Time View
Update : মঙ্গলবার, ২ মার্চ, ২০২১

মোঃ সুফিয়ান চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি:
চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল থানার ওসি সেলিম রেজা ও এসআই গোলাম রসুলের অসদাচরণ থেকে মুক্তি পেতে নাচোল উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাবিহা সুলতানা কাছে স্মারক লিপি প্রদান করেন কয়েকজন গৃহীনি। আজ মঙ্গলবার দুপুর ৩ জন গৃহীনির স্বাক্ষরি স্মারকলিপিটি নির্বাহী অফিসার কাছে প্রদান করা হয়।

স্মারকলিপি পত্র থেকে জানা যায়; গেলো মাসের ২৮ ফেব্রুয়ারী রবিবার নাচোল পৌর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। পৌর নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী আব্দুর রশিদ খান ঝালু মেয়র নির্বাচিত হয়। তার প্রতিদ্বন্দ্বী চামচ প্রতিক প্রার্থী রেজাউল করিম বাবু মেয়র নির্বাচিত না হওয়ার ক্ষোভ জন্মায়। নাচোল থানার ওসি সেলিম রেজার নেতৃত্বে এসআই গোলাম রসুলসহ কয়েকজন পুলিশ অতর্কিত হামলা চালায় নব-নিবাচিত মেয়রের সমর্থকদের উপর। গতকাল ১ লা মার্চ রাত ৯টায় নাচোল বাজারের কাঠপট্টিতে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

এতে নাচোল উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ফারুক আহম্মেদ বাবুকে প্রাণ নাশকের হুমকি দেয় এসআই গোলাম রসুল। এছাড়াও অন্যান্য নেতাকর্মীরাকে বেড়ধক পেটায় পুলিশ। পরবর্তীতে গভীর রাতের আবারও নাচোল বাজার ও থানা পাড়ায় বিভিন্ন বাড়িতে হামলা চালায় পুলিশ। এ সময় ১৩-১৪ জনকে আটক করে পুলিশ।

স্মারক পত্র থেকে আরোও জানা যায়; আমিনুল ইসলাম, রজব আলী, আজিমুল শেখ, মৃত নজরুল ইসলামসহ আনোয়ার হোসেনের বাড়িতে হামলা চালায় এসআই গোলাম রসুলসহ আরো ৫ পুলিশ সদস্য। এ ঘটনার পর থেকে আওয়ামীলীগের একাধিক পরিবারের সদস্য বাড়ি থাকতে না পারায় পুরুষ শূন্য হয়ে পড়েছে বাড়িগুলো।

নাচোল থানার এসআই গোলাম রসুল বিষয়টি অস্বীকার করে জানান, প্রতিনিয়ত পুলিশ বা আমি আসামী ধরতে গিয়েছিলাম। কোন ভাবে কারো বাড়িতে হামলা বা অসদাচারণ ব্যবহার করিনি। এটা মিথ্যা-ভিত্তিহীন। নাচোল থানার অফিসার ইনচার্ সেলিম রেজা সকল অভিযোগ অস্বীকার করে জানান এ ঘটনা তারা নিজেরায় করেছে। এখানে পুলিশকে ব্যবহার করছে। নাচোল উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাবিহা সুলতানা জানান,স্মারকলিপি হাতে পেয়েছি। আমরা বসে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নিবো


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category




error: Content is protected !!
error: Content is protected !!