• শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ০৫:৫২ অপরাহ্ন
শিরোনাম
সাপাহার মডেল প্রেসক্লাবের ৩য় বর্ষপূর্তি উদযাপন নৌকা প্রার্থী মুঃ জিয়াউর রহমানের পথ সভা সাপাহারে সড়ক দূর্ঘটনায় মোটরসাইকেল চালক নিহত গোমস্তাপুরে ব্যক্তি উদ্যোগে কম্বল বিতরণ শীতার্ত অসহায় ও দুঃস্থদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন ডিএমপি কমিশনার চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের আসন্ন জাতীয় সংসদ উপনির্বাচনে প্রার্থী জিয়াউর রহমানের পথসভা অনুষ্ঠিত। প্রধানমন্ত্রী আগমন উপলক্ষে তাহেরপুর পৌর আওয়ামীলীগের প্রচার মিছিল চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের বিএনপির সদ্য পদত্যাগী সাংসদ আমিনুল ইসলামের স্বতন্ত্র প্রার্থীর পক্ষের ভোট প্রচারণায় তৃণমুল নেতাকর্মীদের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি। প্রবীণ সাংবাদিক `ডি.এম তালেবুন নবী’ আর নেই গোলাপগঞ্জ থেকে ১০৪ পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

আন্তর্জাতিক ছাত্র এবং স্নাতকদের জন্য কানাডায় স্থায়ী বাসস্থান

Reporter Name / ৫৩৫ Time View
Update : রবিবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২২

আন্তর্জাতিক ছাত্র এবং স্নাতকদের জন্য কানাডায় স্থায়ী বাসস্থান

 

হাকিকুল ইসলাম খোকন ,যুক্তরাষ্ট্র সিনিয়র প্রতিনিধিঃ

অভিবাসন প্রত্যাশী ও অধ্যয়নরত বিদেশী শিক্ষার্থী, যারা স্থায়ীভাবে কানাডায় বসবাস করতে আগ্রহী— তাদেরকে বিশেষ সুবিধা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কানাডার সরকার। দেশটির অভিবাসন বিষয়ক মন্ত্রী সিন ফ্রেসার শুক্রবার এক ঘোষণায় এ তথ্য জানিয়েছেন।অভিবাসনমন্ত্রী বলেছেন, কানাডার বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে যেসব বিদেশী শিক্ষার্থী স্নাতকোত্তর ডিগ্রি কোর্স শেষ করেছেন এবং এখনও কানাডায় বসবাস করছেন, তাদেরকে ওয়ার্ক পারমিট বাড়ানোর জন্য আবেদন করার সুযোগ দেওয়া হবে।চলতি বছর গ্রীষ্ম থেকেই শুরু হচ্ছে এই প্রকল্প এবং এর আওতায় আবেদনকারী শিক্ষার্থীদের ওয়ার্ক পারমিটের মেয়াদ আরও ১৮ মাস বাড়ানো হবে।কানাডার অভিবাসন বিষয়ক দপ্তর ইমিগ্রেশন, রেফিউজিস অ্যান্ড সিটিজেনশিপ ইন কানাডার (আইআরসিসি) হিসেব অনুযায়ী, চলতি বছর প্রায় ৯৫ হাজার স্নাতকোত্তর শিক্ষার্থীর ওয়ার্ক পারমিট মেয়াদোত্তীর্ণ হয়ে যাবে। এই শিক্ষার্থীদের মধ্যে ৫০ হাজারেরও বেশি কানাডায় স্থায়ীভাবে বসবাসে আগ্রহী।ওয়ার্ক পারমিটের মেয়াদ যদি বাড়ানো হয়, তাহলে এই শিক্ষার্থীরা স্থায়ীভাবে কানাডায় বসবাসের জন্য প্রয়োজনীয় বিভিন্ন শর্ত পূরণে আরও সময় পাবেন বলে মনে করছেন আইআরসিসির কর্মকর্তারা।ছাত্রদের পাশাপাশি বৈধ অভিবাসন প্রত্যাশীদের জন্যও স্বস্তিকর নিয়ম জারি করছে আইআরসিসি। করোনা মহামারির গত দুই বছর ছাড়া বিগত প্রতিটি বছরই উল্লেখযোগ্যসংখ্যক দক্ষ কর্মী, উদ্যোক্তা ও আবাসন প্রত্যাশীদের কানাডায় প্রবেশের অনুমতি দিয়ে আসছে দেশটির সরকার।চলতি ২০২২ সালের গ্রীষ্ম থেকে ফের এই প্রক্রিয়া চালু হচ্ছে।

কানাডার অভিবাসনপ্রত্যাশীদের সাধারণত দুই ভাগে ভাগ করা হয়— (১) কানাডায় বসবাস করছেন কিন্তু স্থায়ী থাকার অনুমতি পাননি এবং (২) বাইরের বিভিন্ন দেশে বসবাসরত লোকজন, যারা কানাডায় আবাস করতে আগ্রহী।

কানাডায় বসবাস করছেন কিন্তু স্থায়ীভাবে থাকার অনুমোদন না থাকা লোকজনকে বলা হয় কানাডিয়ান এক্সপেরিয়েন্স ক্লাস (সিইসি)। আর বাইরের বিভিন্ন দেশ থেকে যারা কানাডায় স্থায়ীভাবে বসবাসের সুযোগ চান তাদেরকে ফেডারেল স্কিলড ওয়ার্কার (এফএসডব্লিউ) এবং ফেডারেল স্কিলড ট্রেডার্স (এফএসটি)— দুই ক্যাটাগরিতে ফেলা হয়।

আইআরসিসির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, চলতি বছর থেকে আবেদন প্রক্রিয়াকে আরও সহজ করা ও সময় কমানোর পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। আইআরসিসি জানিয়েছে, অভিবাসনপ্রত্যাশীদের আবেদনপত্র যাচাই-বাছাই ও সর্বোচ্চ স্কোরধারীকে বসবাসের অনুমোদন দিতে এতদিন ৭ মাস থেকে ২ বছর পর্যন্ত সময় ব্যয় করা হতো। নতুন নিয়ম অনুযায়ী, ৬ মাসের মধ্যে এ বিষয়টির নিষ্পত্তি হবে।

শুক্রবারের ভাষণে কানাডার অভিবাসনমন্ত্রী সিন ফ্রেসার বলেন, ‘আমরা একটি সহজ ও ত্বরিৎগতির অভিবাসন প্রক্রিয়া চালু করতে চাই। আগামী সপ্তাহগুলোতে এ সম্পর্কে আরও বিস্তারিত তথ্য জানতে পারবেন জনগণ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category




error: Content is protected !!
%d bloggers like this:
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: