আজ সোমবার, ০১ Jun ২০২০, ১১:০৯ পূর্বাহ্ন
Smiley face

হয়রানির শিকার জমির প্রকৃত মালিকরা

জারিফ হোসেন স্টাফ রিপোর্টার

চাঁপাই নবাবগঞ্জ জেলায় চলছে জমি মালিকানার জালিয়াতের মাধ্যমে ভূমিদস্যুতার দৌরাত্ম্য। এরূপ ভূমিদস্যুর দৌরাত্ম্যে মালিকরা নিজেদের জমিজমা নিয়ে অনিশ্চয়তায় রয়েছেন।

সংখ্যালঘু সহ বিভিন্ন সম্প্রদায়ের ওপর এর প্রভাব বেড়েই চলেছে। এ সব দস্যুর নানা অত্যাচারের শিকার হচ্ছে নিরীহ জমির মালিকরা। এতে পুরো জেলা জুড়ে বিশৃঙ্খলা বিরাজ করছে।

অভিযোগ পাওয়া যায়,একশ্রেণির অসাধু সিন্ডিকেটের যোগসাজশে ভূমিদস্যু সিন্ডিকেট ভূমির ভুয়া মালিকানা তৈরি করে নিরীহ মানুষের জমির ওপর জবর দখল পাঁয়তারা শুরু করেছে। জমির জবর দখল আয়ত্ব করে ভুয়া এ সব মালিকানার মাধ্যমে জমি কেনা কাটার বাণিজ্য চালিয়ে যাচ্ছে অসাধু সিন্ডিকেট। গত বেশ কয়েক বছরে বিভিন্ন মৌজায় বহু ভুয়া মালিকানার কাগজ দেখিয়ে এই সিন্ডিকেটের দস্যুরা রমরমা ভূমি বাণিজ্য চালিয়ে যাচ্ছে।

এ সব জমির কেনা কাটা নিয়ে সাধারণ মানুষ প্রতারণার শিকার হচ্ছে।সাধারণ লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়,ভূমি দস্যুচক্রের উৎপাত কমছে না। মানুষ ভোগান্তির অব্যাহতি চায়। একটি দস্যু চক্র মালিকানার ভুয়া নামজারি করে জবর দখলের পাঁয়তারা করছে চাঁপাই নবাবগঞ্জ জেলার বিভিন্ন মৌজায়। ওই জালিয়াতি সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে প্রশাসনে সুনজর অতিব জরুরী।

চিহ্নিত সিন্ডিকেট জবর দখলের তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে প্রকৃত মালিকদের প্রতি ভয়ভীতি প্রদর্শনে হয়রানি করছে।এতে সাধারণ মানুষ হয়রানি শিকার হচ্ছে,এই চিহ্নিত সিন্ডিকেট সরকারি দলের নাম ভাংগীয়ে পৌরসভা, আতাহার, বালুগ্রাম,বালিয়াডাঙ্গা,রানীহাটি, বারঘরিয়াসহ চাঁপাইনবাবগঞ্জের বিভিন্ন মোজায় জোর দখল চালিয়ে যাচ্ছে। তাই এ সকল চিহ্নিত ভূমিদস্যু, দাঙ্গাবাজ, দখলবাজ, প্রতারক ও জালিয়াত চক্রের বিরুদ্ধে প্রশাসনের দৃষ্টি দেওয়া উচিত।

Print Friendly, PDF & Email
error: Content is protected !!