আজ বৃহস্পতিবার, ০৪ Jun ২০২০, ০৫:০৯ অপরাহ্ন
Smiley face

ছায়াদাত্রী বৃক্ষ

মোঃরিয়াজুল ইসলামঃ
কোন সময় এক জায়গায় একটি আম গাছ ও একটি ছোট বাচ্চা ছেলে বাস করত। ছেলেটি গাছটির ছায়ায় প্রায়ই খেলা করতে আসত। মাঝে মাঝে সে গাছের মগডালে উঠে খেলা করত। গাছটিও ছেলেটিকে খুব ভালবাসত তার সঙ্গ পছন্দ করত। সময় বয়ে যায়। ছেলেটি বড় হয়ে ওঠে। সে আর গাছটির আশে পাশে খেলতে আসে না। গাছটির মন খারাপ হয়।

অনেকদিন পর ছেলেটি আবার গাছের কাছে আসে। গাছটি লেলেটিকে বলে,
–এস আমার সাথে খেলা কর।
— আমি আর এখন বাচ্চা নই , এখন আর আমি গাছের সাথে খেলতে পারি না। আমার খেলনা প্রয়োজন। আর তার জন্য চাই টাকা। ছেলেটির উত্তর।
গাছটি দুঃখ প্রকাশ করে বলে,
— আমার কাছে টাকা নেই , তবে তুমি আমার আম গুলি নিয়ে যেতে পার , সেগুলি বিক্রি করে টাকা পাবে আর তা দিয়ে তোমার খেলনা কিনতে পারবে ।

ছেলেটি আম পারে আর খুশি মনে চলে যায়। আর ফিরে আসে না।

ধীরে ধীরে ছেলেটি যুবক হয়ে ওঠে। একদিন সে মন ভার করে আবার গাছটির কাছে ফিরে আসে । গাছটি তাকে তার সাথে খেলতে বলে। ছেলেটি বলে,
— আমার হাতে খেলার মত কোন সময় নেই। আমাকে আমার পরিবারের জন্য বাড়ি বানাতে হবে। তুমি কি আমাকে সাহায্য করতে পার?
— আম গাছটি বলে, দুঃখিত , আমার কাছে কোন বাড়ি নেই। তবে তুমি আমার শাখা গুলি কেটে নিতে পার , যা দিয়ে তুমি তোমার পরিবারের জন্য বাড়ি বানাবে।

ছেলেটি সেটাই করে আর খুশি মনে চলে যায়। ছেলেটির খুশি দেখে গাছটি খুশি হয় কিন্ত সে আর ফিরে আসে না। গাছটি আবার একাকী আর দুঃখ বোধ করে।

একদিন এক অত্যন্ত গরম দুপুরে সে আবার ফিরে আসে আর তা দেখে গাছটি অত্যন্ত খুশি হয়ে ওঠে। গছটি তাকে বলে
— এস আমার সাথে খেলা কর।
— লোকটি বলে আমি এখন বুড়ো হয়ে গেছি , আমার একটি নৌকা দরকার যাতে আমি সাগরে যেতে পারি আর একটু শান্তি পেতে পারি।
গাছটি আবারও দুঃখ প্রকাশ করে বলে, আমার কাছে কোন নৌকা নেই, তবে তুমি আমার গুড়িটি নিয়ে যেতে পার, যা দিয়ে তুমি নৌকা বানাবে আর সাগেরে যেতে পারবে।

লোকটি তাই করে আর খুশি মনে চলে যায়। অনেকদিন চলে যায় লোকটি আর ফিরে আসে না।

শেষে একদিন একবোরেই সে চলে আসে, গাছটি তাকে দেখে বলে
— দুঃখিত বৎস, আমার আর দেবার মত তেমন কিছু নেই, কোন আম নেই।
— কামড় দেবার মত আমার কোন দাত নেই লোকটি উত্তর দেয়।
— কোন গুড়ি নেই যাতে তুমি চড়তে পার ।
— এটা করার জন্য আমি অনেক বেশি বুড়ো হয়ে গেছি লোকটি উত্তর করে।

— আমার আসলেও দেবার মত আর কিছু নেই , থাকার মধ্যে আছে এই মরা শিকড় গুলো দুঃখের সাথ বলে আম গাছ।

— আমার এখন আর বেশি কিছু চাই না, এত বছরে আমি অত্যন্ত ক্লান্ত হয়ে পড়েছি। এখন আমার শুধু একটু বিশ্রাম নেবার জায়গা চাই, লোকটি বলে।

–ভালো, বৃদ্ধ গাছের মরা শেকড়ই সবচেয়ে ভালো বিশ্রাম নেবার জায়গা।
— আমার কাছে বস আর বিশ্রাম নাও গাছটি বলে।

লোকটি গাছটির পাশে বসে আর বিশ্রাম নেয়। গাছটি অত্যন্ত খুশি হয় আর মনের সুখে হাসতে থাকে।

শিক্ষা: এই গল্পে গাছটি আমাদের পিতা মাতোকে প্রকাশ করছে। যখন আমার ছোট থাকি তখন আমরা তাদের সাথে খেলতে ভালবাসি।তারা তাদের জীবনের সবটাই আমাদের জন্য উৎসর্গ করে। যখন বড় হয়ে যাই তখন তাদের পরিত্যাগ করি, কেবল তখনই ফিরে আসি, যখন আমাদের তাদের কাছে প্রয়োজন পরে। তারপরও তাদের কাছে ফিরে এলে তারা কত না খুশি হয়। তাই এখনই তাদের প্রতি লক্ষ্য রাখা উচিৎ যাতে খুব বেশি দেরি না হয়ে যায়।

(বিদেশী গল্প অবলম্বনে)

Print Friendly, PDF & Email
error: Content is protected !!