ঈশ্বরগঞ্জে নিখোঁজ হওয়ার ২ দিনের মাথায় ব্রহ্মপুত্র নদ থেকে স্কুল ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত: ৭:৩৫ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১১, ২০২০

চাঁন মিয়া
ঈশ্বরগঞ্জ ( ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি
ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে পারভেজ মোশাররফ নামে ১৫ বছর বয়সের এক স্কুল ছাত্রকে রাতের বেলায় ফোন করে ডেকে নিয়ে হত্যার পর মরদেহ ফেলা হয় ব্রহ্মপুত্র নদে। নিখোঁজ হওয়ার দুইদিনের মাথায় রোববার(১১/১০/২০২০) তারিখ সকালে নদী থেকে মরদেহ উদ্ধার করা হয়।
পারভেজ ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার উচাখিলা ইউনিয়নের মরিচারচর উত্তরপাড়া এলাকার মালয়েশিয়া প্রবাসী মঞ্জুরুল হকের ছেলে। সে মরিচারচর উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্র ছিল।
জানা গেছে, শুক্রবার রাত ৮টার দিকে পারভেজকে ফোনে জরুরি কথা আছে বলে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয়। বাইসাইকেল চালিয়ে পারভেজ ফোনের অপরপ্রান্তের পূর্বের পরিচিত ব্যক্তির সঙ্গে দেখা করতে যায়। পারভেজ এর পরিবার বলে রাত বাড়তে শুরু করলো কিন্তু পারভেজ বাড়ি ফেরেনি অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তাকে পাওয়া যায়নি। রোববার সকাল ৭টায় বাড়ি থেকে প্রায় এক কিলোমিটার দূরে ব্রহ্মপুত্র নদে মরদেহ পাওয়া গেছে বলে প্রতিবেশীদের কাছ থেকে তার পরিবারের লোকজন জানতে পারে। পারভেজের পরিবারের লোকজন সেখানে গিয়ে মরদেহ শনাক্ত করে। খবর পেয়ে ঈশ্বরগঞ্জ থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদহটি উদ্ধার করে।
মরদেহের সুরতহালে থুতনির নিচে ধারালো অস্ত্রের আঘাতসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়।
পারভেজ এর মা রুজিনা বেগম বলেন, তাদের পরিবারের সঙ্গে কারো শত্রুতা নেই। তার ছেলেকে ফোন করে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয়। নিজের সাইকেল ও ২ টি মোবাইল নিয়ে যায় সাথে। উনার ধারণা মোবাইল ফোনের জন্যই তার ছেলেকে হত্যা করা হয়েছে।
ঈশ্বরগঞ্জ থানার অফিসার ইন্চার্জ মোখলেছুর রহমান বলেন, মরদেহ নদ থেক উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের শরীরে বেশ কিছু আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। হত্যার রহস্য উদঘাটনে চেষ্টা চলছে।

Smiley face