আজ শনিবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২০, ০১:৩৩ পূর্বাহ্ন

মাশরাফি নাকি বিসিবি, সমস্যা আসলে কোথায়?

বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মরতুজা আর বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) মাঝে যে বিশাল একটা প্রাচীর রয়েছে সেটা আর কারো বুঝার বাকি নাই। বিশ্বকাপে বাজে পারফর্ম্যান্সের পর থেকেই তাকে নিয়ে নানান আলোচনা-সমালোচনা হয়। গুঞ্জনও উঠে বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়কের অবসর নিয়ে।

সংবাদসূত্রে জানা যায়, অবসরের বিষয়ে আগ বাড়িয়ে মাশরাফীর সাথে কথা বলতে চাইছেন না বোর্ডের দায়িত্বশীল কেউ। ম্যাশ নিজের থেকে কোনো সিদ্ধান্ত নেন কিনা সেটিই দেখার অপেক্ষায় তারা। অন্যদিকে, এ নিয়ে এখনই কোনো সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারেননি বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক। বিভিন্ন সময়ে গণমাধ্যমে দেয়া সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন, আমার ক্যারিয়ার শেষের ঘোষণাটা খুব ভেবে-চিন্তে আসার সম্ভাবনা কম।

img-add

গত সপ্তাহে গণমাধ্যমকে মাশরাফী বলেছেন, ‘‘ মাঠ থেকে অবসর নেবো কিনা, সে সিদ্ধান্ত এখনো নিইনি৷ নিজের যদি ওরকম মনে হয়, ক্রিকেট বোর্ড যদি মনে করে চিন্তাভাবনা করব৷”

এদিকে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনও কথা বলেছেন৷ এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেছেন, ‘‘ওকে আমরা একবার প্রস্তাব দিয়েছিলাম যে, জিম্বাবুয়ের সঙ্গে একটা ওয়ানডে খেলিয়ে বিদায় দেবো৷ ওর সঙ্গে এমন কথা হয়েছিল লন্ডনেই৷ সে তো রাজি হলো না৷ সে বিপিএল পর্যন্ত দেখতে চেয়েছিল৷ তারপর সিদ্ধান্ত নেবে৷ আমাকে কিছু বলেনি, তবে পত্রপত্রিকা দেখে মনে হয়েছে, ওর ঘটা করে বিদায় নেয়ার ইচ্ছে নেই৷ আমরা আবার দেখবো৷ আমরা চাইবোই ওকে খুব ভালো করে বিদায় দিতে৷ এমনভাবে বিদায় দেয়া হবে, যেটা ওর আগে বাংলাদেশের কেউ পায়নি, পরেও কেউ পাবে না৷ এখন সে যদি চায় হবে, না হলে তো কিছু করার নেই৷”

তাহলে প্রশ্ন হল এত কিছুর পরও মাশরাফি বিদায় নিচ্ছেন না কেন? তাহলে কি মাশরাফি চান দেশের মাটিতে ‘স্মরণীয়’ কোনো ম্যাচ খেলে বিদায় নিতে৷ তিনি চাইলেই কি এ বছর দেশে (বা বিদেশেও) সেরকম ম্যাচ আয়োজন করা বিসিবির পক্ষে সম্ভব?

error: Content is protected !!