• বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ০২:৫১ অপরাহ্ন
শিরোনাম
গোবিন্দগঞ্জে নবাগত উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরিফ হোসেনের পক্ষ থেকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শাহজাদপুরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে যুবক নিহত,আহত অর্ধতশত বীরগঞ্জে মাদক ও বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে শিক্ষার্থীদের শপথ চেয়ারম্যান আলমগীর সরকারের উদ্যোগে এমপি এনামুল হকের করোনা মুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল ওসির নাম্বার ক্লোন করে চেয়ারম্যান প্রার্থীকে প্রলোভন দেখিয়ে বিকাশে টাকা নেয়া সেই অভিনব প্রতারক গ্রেফতার তাহেরপুর পৌরসভায় পানির ট্যারিফ নির্ধারন বিষয়ক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত বেনাপোলে তৃতীয় লিঙ্গের মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ তরুণ আইটি উদ্যোক্তা তারেক আহমেদের সফলতার গল্প বাবুগঞ্জ উপজেলার ১০ টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান কে জরিমানা। শ্রীমঙ্গল এ র‍্যাব ৯ এর অভিযান এ ৬৭০ পিস ইয়াবা সহ আটক ১ 



গলাচিপায় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পশুর হাট বন্ধ করে দিল উপজেলা প্রশাসন

Reporter Name / ৮৫৯ Time View
Update : শুক্রবার, ২ জুলাই, ২০২১



তারিখঃ ২ জুলাই ২০২১

গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধিঃ
পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলার গোলখালী ইউনিয়নের নলুয়াবাগীতে সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পশুর হাট বসানো হয়েছে। এতে দেখা দিয়েছে স্বাস্থ্য ঝুঁকি। শুক্রবার (২ জুলাই) সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন ওই হাটের খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশিষ কুমার পশুর হাটটি বন্ধ করে দেয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিষয়টি নিশ্চিত করন। এলাকাবাসী সূত্রে জানাগেছে, করোনা ভাইরাসের প্রকোপ বৃদ্ধি পেলেও জমজমাট গোলখালী ইউনিয়নের নলুয়াবাগীর পশুর হাট। হাটের ভিতর কোথাও কোন স্বাস্থ্য বিধি ও সামাজিক দূরত্ব মানা হয়নি। সকাল ১০ টা থেকে পশুর হাট শুরু করে সংশ্লিষ্ট ইজারাদার। বিরামহীনভাবে বিকেল নাগাদ চলছিল। নলুয়াবাগী হাটে উপজেলার পক্ষিয়া গ্রামের পশুর পাইকারী ক্রেতা নাসির তালুকদার জানান, নলুয়াবাগী হাটে প্রতি সপ্তাহে কমপক্ষে ৬০০ থেকে ৮০০ গরু বিক্রি হয়। এ হাটে সরকার নির্ধারিত ফি থেকেও ইজারাদার শাহ মেহেদী ফরহাদ অতিরিক্ত টাকা আদায় করার অভিযোগ দীর্ঘদিনের। নলুয়াবাগী হাটের ক্রেতা সিয়াম জানান, আমি ৬০ হাজার টাকা দিয়ে গরু কিনেছি। আমার কাছ থেকে ইজারাদার ৬০০ টাকা হাসিলের টাকা রেখেছে। এছাড়া বিক্রেতার কাছ থেকেও ২০০ টাকা রেখেছে। এ হাটে ইজারাদারের ইচ্ছে অনুযায়ী চলে। হাসিলের কোন রশিদের কপি দেয় না। ইজারাদার প্রভাবশালী হওয়ায় কোন প্রতিবাদ করেও লাভ হয়না। স্থানীয় মহিষ বিক্রেতা মো. মোশারেফ প্যাদা জানান, আজ সকাল থেকে হাট শুরু হয়। বিকেল সাড়ে ৩ টায় প্রশাসন এসে বন্ধ করে দেয়। এ হাটের ইজারাদার কোন হাসিলের রশিদ দেয় না। এ বিষয়ে জানার জন্য গোলখালী ইউপি চেয়ারম্যান মো. নাসির উদ্দিনের মোবাইলে একাধিকবার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। এ প্রসঙ্গে গলাচিপা উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশিষ কুমার বলেন, আমরা খবর পেয়ে নলুয়াবাগী হাটে উপস্থিত হয়ে পশুর হাট বন্ধ করে দিয়েছি। যারা হাট চালাচ্ছিল আমাদের আসার খবর পেয়ে পালিয়ে গেছে।




আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category