• রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৪:০৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
বেলকুচিতে বাল্যবিয়ে দেয়ার অপরাধে কনের পিতার কারাদন্ড রাজশাহীতে স্কুলছাত্রী হত্যাচেষ্টায় জড়িতদের গ্রেপ্তার করে শাস্তি দাবি ফুলবাড়ীতে বিশ্ব খাদ্য দিবস ও জাতীয় ইঁদুর নিধন অভিযান উদ্বোধন গোয়ালা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়ন চান আব্দুল মতিন কুমিল্লায় উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেনে পাথর নিক্ষেপ, শিশুসহ তিন যাত্রী আহত গোমস্তাপুরে পূজা মন্ডপে মদ্যপের ছুরি আঘাতে গ্রাম পুলিশসহ আহত -৩ নাচোলে সনাতন ধর্মালম্বীদের প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হলো দুর্গো উৎসব নাচোলে সনাতন ধর্মালম্বীদের প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হলো দুর্গো উৎসব মন্দির ভাংচুর ও প্রতিমা ভাংচুরের প্রতিবাদে চাঁপাইনবাবগঞ্জে প্রতিবাদ ও অবস্থান কর্মসূচি নাগরপুরে গয়হাটা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী কালামের মোটর শোভাযাত্রা



গলাচিপায় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পশুর হাট বন্ধ করে দিল উপজেলা প্রশাসন

Reporter Name / ৭৫১ Time View
Update : শুক্রবার, ২ জুলাই, ২০২১



তারিখঃ ২ জুলাই ২০২১

গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধিঃ
পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলার গোলখালী ইউনিয়নের নলুয়াবাগীতে সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পশুর হাট বসানো হয়েছে। এতে দেখা দিয়েছে স্বাস্থ্য ঝুঁকি। শুক্রবার (২ জুলাই) সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন ওই হাটের খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশিষ কুমার পশুর হাটটি বন্ধ করে দেয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিষয়টি নিশ্চিত করন। এলাকাবাসী সূত্রে জানাগেছে, করোনা ভাইরাসের প্রকোপ বৃদ্ধি পেলেও জমজমাট গোলখালী ইউনিয়নের নলুয়াবাগীর পশুর হাট। হাটের ভিতর কোথাও কোন স্বাস্থ্য বিধি ও সামাজিক দূরত্ব মানা হয়নি। সকাল ১০ টা থেকে পশুর হাট শুরু করে সংশ্লিষ্ট ইজারাদার। বিরামহীনভাবে বিকেল নাগাদ চলছিল। নলুয়াবাগী হাটে উপজেলার পক্ষিয়া গ্রামের পশুর পাইকারী ক্রেতা নাসির তালুকদার জানান, নলুয়াবাগী হাটে প্রতি সপ্তাহে কমপক্ষে ৬০০ থেকে ৮০০ গরু বিক্রি হয়। এ হাটে সরকার নির্ধারিত ফি থেকেও ইজারাদার শাহ মেহেদী ফরহাদ অতিরিক্ত টাকা আদায় করার অভিযোগ দীর্ঘদিনের। নলুয়াবাগী হাটের ক্রেতা সিয়াম জানান, আমি ৬০ হাজার টাকা দিয়ে গরু কিনেছি। আমার কাছ থেকে ইজারাদার ৬০০ টাকা হাসিলের টাকা রেখেছে। এছাড়া বিক্রেতার কাছ থেকেও ২০০ টাকা রেখেছে। এ হাটে ইজারাদারের ইচ্ছে অনুযায়ী চলে। হাসিলের কোন রশিদের কপি দেয় না। ইজারাদার প্রভাবশালী হওয়ায় কোন প্রতিবাদ করেও লাভ হয়না। স্থানীয় মহিষ বিক্রেতা মো. মোশারেফ প্যাদা জানান, আজ সকাল থেকে হাট শুরু হয়। বিকেল সাড়ে ৩ টায় প্রশাসন এসে বন্ধ করে দেয়। এ হাটের ইজারাদার কোন হাসিলের রশিদ দেয় না। এ বিষয়ে জানার জন্য গোলখালী ইউপি চেয়ারম্যান মো. নাসির উদ্দিনের মোবাইলে একাধিকবার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। এ প্রসঙ্গে গলাচিপা উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশিষ কুমার বলেন, আমরা খবর পেয়ে নলুয়াবাগী হাটে উপস্থিত হয়ে পশুর হাট বন্ধ করে দিয়েছি। যারা হাট চালাচ্ছিল আমাদের আসার খবর পেয়ে পালিয়ে গেছে।




আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category