• শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ০৭:৩৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
কুকুরের প্রাণ বাঁচাতে মাঠে বাগমারা ফায়ার সার্ভিস টিম গোবিন্দগঞ্জের নবাগত উপজেলা নির্বাহী আফিসার আরিফ হোসেনের পরিচিতি ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত গোমস্তাপুরে বাঙ্গাবাড়ী ইউনিয়নের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যানের ইন্তেকাল  রাজশাহীতে বাবাকে গলাকেটে হত্যার করেছে ছেলে রাসিকের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কার্যক্রমে যোগ হলো আরো ১টি আধুনিক এসটিএস প্রথমবারের মতো পিএসসি কোর্স সম্পন্ন করলেন তিন পুলিশ কর্মকর্তা গোবিন্দগঞ্জে নবাগত উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরিফ হোসেনের পক্ষ থেকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শাহজাদপুরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে যুবক নিহত,আহত অর্ধতশত বীরগঞ্জে মাদক ও বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে শিক্ষার্থীদের শপথ চেয়ারম্যান আলমগীর সরকারের উদ্যোগে এমপি এনামুল হকের করোনা মুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল



চাঁপাইনবাবগঞ্জে হঠাত ধসে পড়া ৩৫ বাড়ি পরিদর্শন করলেন ইঞ্জি: মাহতাব উদ্দিন

Reporter Name / ১২৩ Time View
Update : শুক্রবার, ২৬ নভেম্বর, ২০২১



হাবিবুল বারি হাবিব, চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি : চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার মোবারকপুর জোহরপুর এলাকায় পাগলা নদীর ধারে মাটির নীচে ধসে পড়া প্রায় ৩৫ টি বাড়ি ও সেই এলাকা পরিদর্শন করেছেন আওয়ামীলীগ নেতা ইঞ্জিনিয়ার মো: মাহতাব উদ্দীন । বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর দুপুরে তিনি এই এলাকা পরিদর্শন করেন । এসময় বিলীন হওয়া বাড়ির লোকজন ও স্বজনদের আহাজারিতে ভারী হয়ে ওঠে পুরো এলাকা । চরম আতঙ্কের কথা জানান আশে পাশের বাড়ি ও এলাকার লোকজন । পরিদর্শন শেষে এই ঘটনাকে একটি প্রাকৃতিক দুর্যোগ উল্লেখ করে অসহায় ও বাড়ি হারা নি:স্ব লোকজনের পুনর্বাসন ও সার্বিক সহযোগীতার জন্য সরকারের সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহ্বান জানান ইঞ্জিনিয়ার মো: মাহতাব উদ্দীন । উল্লেখ্য, গত কয়েকদিন আগে হঠাত মাটির নিচে দেবে যায় প্রায় ৩৫ টি বসতবাড়ি। বেশকিছু বাড়ির মাঝামাঝি স্থানে দেখা দিয়েছে বিশাল ফাটল। এরইমধ্যে মাটির নিচে বিলীন হয়েছে বেশ কিছু পাকা বাড়ি। বর্তমানে ঘুম হারাম ওই গ্রামের বাসিন্দাদের । অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হচ্ছে তাদের । মোবারকপুর ইউনিয়নের জোহরপুর গ্রামে গিয়ে দেখা গেছে, রুপচাঁন হালদার, তপন হালদার, ডাবলু, দয়াল হালদার, নজরুল, জাহাদুর ও রশিদেরসহ বেশ কিছু বসতবাড়িতে এসব ফটল দেখা দিয়েছে ।

স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ৩০ বছর আগে গড়ে ওঠে এই গ্রাম। কিন্তু এখন হঠাৎ দেখি প্রায় ৩০টি বাড়িতে ফাটল দেখা দিয়েছে । বেশকিছু পাকাঘর মাটির নীচে বিলীন হয়েছে । বাড়ির মালিকরা বলছেন, সারা জীবনের কষ্টার্জিত জমানো টাকা খরচ করে বাড়ি বানিয়েছিলেন। পরিবার পরিজন নিয়ে সুখেই কাটছিল তাদের সাজানো সংসার।

কিন্তু হঠাৎ করে তাদের সে স্বপ্ন চুর্ণবিচুর্ণ হয়ে যাচ্ছে, দেখার কেউ নেই। রূপচাঁন হালদার বলেন, হঠাৎ একদিন সকালে বাড়ির উঠানে একটি ফাটলের দৃশ্য দেখতে পাই। কিন্তু গুরুত্ব দিইনি । হঠাৎ সকালে দেখি আমার একটি ছাদের ঘরসহ টয়লেট ভেঙে নদীতে পড়ে গেছে। আমি একজন জেলে, সারাজীবনের জমানো টাকায় এই বাড়ি বানিয়েছিলাম। এখন আমি কই থাকবো? তপন হালদার বলেন, আমাদের বাড়ির পেছনেই পাগলা নদী আর পাশেই রয়েছে কানসাট স্লুইস গেট ।

কিন্তু এতদিন স্লুইস গেটটি বন্ধ ছিল হঠাৎ গেটটি খুলে দেয়ায় দ্রুত পানি বাইরে চলে যায়, তার সঙ্গে সঙ্গেই আমাদের ঘরবাড়ি ধসে যেতে থাকে। মোবারকপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান তৌহিদুর রহমান বলেন, পানি উন্নয়ন বোর্ডের অবহেলার কারণে ৩০টি পরিবার আজ পথে বসতে যাচ্ছে । স্লুইস গেট খোলার আগে পার্শ্ববর্তী বাসিন্দাদের কথা ভাবতে হতো।

শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাকিব আল রাব্বি জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। ঊর্ধ্বতন কৃর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। এদিকে স্থানীয় সদস্য সংসদ সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করেন এবং ক্ষতিগ্রস্তদের সাথে কথা বলে সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস দেন ।




আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category