চট্টগ্রামে মেহেদী রাঙা বিকেল

Rubel Rubel

Islam

প্রকাশিত: ৫:২৯ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২১

ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রথম ইনিংসে অল আউট হওয়ার পরই বাংলাদেশের বড় লিড নিশ্চিত হয়েছিল। যদিও সেটাকে ক্যারিবীয়দের ধরা ছোঁয়ার বাইরে নিয়ে যাওয়ার সুযোগ ছিল বাংলাদেশের। তবে হঠাৎ ছন্দপতনে ৩৯৫ রানের লিড নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে মুমিনুল হকের দলকে।
এই রান নিয়েই অবশ্য স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে পারে বাংলাদেশ। কারণ জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে ৩১৭ রানের বেশি তাড়া করে জয়ের রেকর্ড নেই। বাংলাদেশের দেয়া বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে মেহেদী হাসান মিরাজের ঘূর্ণির মুখে পড়তে হয়েছে ক্যারিবীয়দের।

তাদের টপ অর্ডারের তিন ব্যাটসম্যানকেই ফিরিয়েছেন বাংলদেশের এই ডানহাতি স্পিনার। ২৩ রান করা জন ক্যাম্পবেলকে এলবিডব্লিউ করে ফেরানোর পর আরেক ওপেনার ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েটকে শর্ট লেগে ইয়াসির আলী রাব্বির হাতে ক্যাচ বানিয়েছেন মিরাজ। ব্র্যাথওয়েট করেছেন ২০ রান।

ইনিংসের ২৫তম ওভারে শেন মোসলেকেও এলবিডব্লিউ করে আউট করেছেন মিরাজ। দিনের বাকি সময়টা দেখে শুনে শেষ করেছেন দুই ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যান এনক্রুমাহ বোনার (৩৫) এবং কাইল মায়ার্স (৩৭)।

এর আগে ৩ উইকেটে ৪৭ রান নিয়ে দিন শুরু করা বাংলাদেশ মুশফিকুর রহিমকে হারায় দ্রুতই। এই মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান ১৮ রান করে রাকিম কর্নওয়ালের বলে এলবিডব্লিউ হন। এরপর বাংলাদেশের রান বাড়িয়েছেন অধিনায়ক মুমিনুল হক এবং লিটন দাস।

এই দুজনে পঞ্চম উইকেটে গড়েন ১৩৩ রানের জুটি। এই জুটি গড়ার পথে বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল ১৭৩ বলে নিজের দশম টেস্ট সেঞ্চুরি তুলে নেন। দারুণ খেলছিলেন লিটনও। তিনি জোমেল ওয়ারিকেনকে রিভার্স সুইপ করতে গিয়ে ১১৫ বলে ৬৯ রান করে আউট হয়ে যান ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্টে মায়ার্সের হাতে ক্যাচ দিয়ে।

সঙ্গী হারানোর পরের ওভারে সাজঘরে ফিরে যান মুমিনুলও। তিনি ছক্কা হাঁকানোর চেষ্টা করতে গিয়ে সীমানায় ধরা পড়েন কেমার রোচের হাতে ১১৫ রান করে। এরপর ওয়ারিকেনের এক ওভারেই আউট হন তাইজুল ইসলাম ও প্রথম ইনিংসের সেঞ্চুরিয়ান মিরাজ। এই দুজন ফেরার পর ইনিংস ঘোষণা করেন বাংলাদেশ অধিনায়ক।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ (প্রথম ইনিংস): ৪৩০/১০ (ওভার ১৫০.২) (সাকিব ৬৮, মিরাজ ১০৩, সাদমান ৫৯, ওয়ারিকান ৪/১৩৩, কর্নওয়াল ২/১১৪)

ওয়েস্ট ইন্ডিজ (প্রথম ইনিংস): ২৫৯/১০ (ওভার ৯৬.১) (ব্রাথওয়েট ৭৬, বোনার ১৭, মায়ার্স ৪০, ব্লাকউড ৬৮, সিলভা ৪২; মিরাজ ৪/৫৮, মুস্তাফিজ ২/১৪৬, নাইম ২/৫৪, তাইজুল ২/৮৪)

বাংলাদেশ দ্বিতীয় ইনিংস: ২২৩/৮ (ওভার ৬৭.৫) (মুমিনুল ১১৫, লিটন ৬৯, মুশফিক ১৮, ওয়ারিকান ৩/৫৭, কর্নওয়াল ৩/৮১)

ওয়েস্ট ইন্ডিজ (দ্বিতীয় ইনিংস): ১১০/৩ (ওভার ৪০) (মায়ার্স ৩৭*, ক্যাম্পবেল ২৩, ব্রাথওয়েট ২০, মিরাজ ৩/৫২)