আজ মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৬:৩৬ পূর্বাহ্ন

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ছিনতাই ঘটনায় ৮ জনকে আসামী করে মামলা : ছাড়া পেলেন লেনিন

নিজস্ব প্রতিনিধি : চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক লেনিন প্রামানিক বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১২ টার দিকে ছিনতাই অভিযোগে গ্রেফতারের পর শুক্রবার রাত ১০ টার দিকে ছাড়া পেয়েছে বলে থানা সূত্রে জানা গেছে। দিনভর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও মানুষের মাঝে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু হয়েছিল এ ঘটনা। যুবলীগ নেতা শহীদুল হুদা অলক, আসাফুদ্দৌলাসহ অন্য নের্তৃবৃন্দ ছিনতাই ঘটনায় সদর থানা থেকে আটককৃত নির্দোষ লেনিন প্রামানিককে মুক্ত করে আনেন।
সদর মডেল থানার ওসি অভিযান মো. ইদ্রিস আলী ও সদর ফাঁড়ি ইন্সপেক্টর মো. মোতাহার জানান, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১২ টার দিকে পৌর এলাকার মিস্ত্রিপাড়া গোরস্থানের কাছে ৪ থেকে ৫ জনের একটি দল অটোরিকশা থামিয়ে যাত্রীর কাছ থেকে টাকা ছিনিয়ে নেবার চেষ্টা করে। সেখানে আগে থেকেই যুবলীগ নেতা লেনিন প্রামানিক তার লোকজন নিয়ে অবস্থান করছিল নিজ নির্বাচনী গণসংযোগের জন্য। অটো যাত্রীর চিৎকার ও হট্টগোল হলে লেনিনের লোকজন এগিয়ে যায় সেখানে।

রাতেই লেনিন প্রামানিকসহ ৫ জন যুবককে আটক করে ফাঁড়িতে নিয়ে আসা হয় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য। ফাঁড়িতেই সারারাত আটক থাকার পর আটককৃতদের দুপুরে থানায় হস্তান্তর করা হয়। ছিনতাইয়ের ঘটনায় লেনিনের কোন সংশ্লিষ্টতা না পাবার কারণে রাতে লেনিনকে ছেড়ে দেয় পুলিশ।
ইন্সপেক্টর মো. মোতাহার আরো জানান, টাকা ছিততাই এর ঘটনায় ৮ যুবককে আসামী করে সদর মডেল থানায় মামলা একটি অর্থ ছিনতাই মামলা দায়ের করা হয়েছে। আটককৃতরা মসজিদ পাড়ার সেন্টু, রাজন, রানা, নয়ন ও শহীদ। বাকি ৩ জন পলাতক আছে। তাদের গ্রেফতার করতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে বলেও জানান ইন্সপেক্টর মো. মোতাহার ।


এ ঘটনা সমন্ধে জানতে চাইলে, লেনিন প্রামানিক এ প্রতিবেদককে জানান, রাজনৈতিক ভাবে আমার ইমেজ ও আমাকে হেয় প্রতিপন্ন করতেই বিরোধীরা আমার নামে মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক ভাবে জড়ানোর চেষ্টা করেছিল। আমিসহ আমার লোকজন সেখানে আগে থেকেই নির্বাচন নিয়ে আলাপ আলোচনা করছিলাম। সে সময় পাশেই অটোরিকশাতে কিছু মানুষ ছিনতাই এর চেষ্টা চালায়। হট্টগোল দেখেই সেখানে আমরা ছুটে যায় জানতে কি হয়েছে। পরবর্তীতে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আমিসহ ৫ জনকে পুলিশ ফাঁড়িতে নিয়ে যায়।
লেনিন প্রামানিক আরো বলেন, আমি এ ছিনতাই ঘটনায় কোন ভাবেই জড়িত নই। আমার বিরোধীরা এ বিষয়টি নিয়ে মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক ভাবে জড়িয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ সংবাদটি রটায়। যা আমি তীব্র প্রতিবাদ জানাই। পুলিশ প্রশাসনের উপর আমার আস্থা আছে। অবশ্যই পুলিশ তদন্ত সাপেক্ষ প্রকৃত ছিনতাইকারীদের বিরুদ্ধে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করবে বলে আমি আশাবাদি।

ডি এম কপোত নবী

error: Content is protected !!