• বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৩:০৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
নলছিটিতে ইলিশ ধরার অপরাধে একজনকে কারাদণ্ড গোমস্তাপুরে বীর মুক্তিযোদ্ধার রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন সম্পন্ন । নাচোলে সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে শান্তি শোভাযাত্রা নাটোরের লালপুরে ৪কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক পটুয়াখালীতে ভোক্তা অধিকারের অভিযান : জরিমানা ৫৫ হাজার টাকা পরিত্যাক্ত বাড়ির দেওয়াল ধসে গর্ভবতী নারীসহ আহত ২ নাচোলে সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে শান্তি শোভাযাত্রা বঙ্গবন্ধু কর্মকর্তা পরিষদ,রুয়েট এর উদ্যোগে শহীদ শেখ রাসেলের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন নাটোরের লালপুরে ৪কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক কুড়িগ্রামে সংখ্যালঘুদের উপর নির্যাতনের প্রতিবাদ



নাচোলে সাংবাদিক সোহেল ও তার পরিবারের ওপর সন্ত্রাসি হামলা, সাংবাদিকের ছোট ভাই শাহিন হাসপাতালে ভর্তি

Reporter Name / ৩৮ Time View
Update : রবিবার, ২৮ মার্চ, ২০২১



স্টাফ রিপোর্টারঃ
চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোলে সাংবাদিক ও তার পরিবারের ওপর সন্ত্রাসি হামলা,সাংবাদিক সোহেল ও তার বাবা ও তার ছোট ভাই এর ওপর সন্ত্রাসি হামলা। ফিল্মী কাদায় সিমেন্টের পিলারের সাথে বেঁধে বর্বরোচিত নির্যাতন।
এলাকাবাসী ও এজাহার সূত্রে জানাগেছে, ফতেপুর ইউপির পশ্চিম মির্জাপুর গ্রামে বিএমডিএ’র গভীর নলকুপ থেকে খাবার পানি সরবরাহকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে বাধে। জানাগেছে গত ৮মার্চ থেকে নাচোল প্রেস ক্লাবের সহসভাপতি ও দৈনিক খবরপত্রের নাচোল প্রতিনিধি সোহেল রানার সংযোগটি বিছিন্ন করে দেই নলকুপের ড্রাইভার খবির উদ্দিন। বিএমডিএ’র সহকারী প্রকৌশলীর শাহ মোঃ মুঞ্জুরুল হককে বিষয়টি জানালে তিনি প্রথম দফায় তা সংযোগটি লাগানোর ব্যবস্থা নেন। লাগানোর ৪/৫ দিন পর সংযোগটির পাশ দিয়ে পানি বের হওয়ার অজুহাতে পুনরায় সংযোগটি বিছিন্ন করে দেয়। গত ২৭তাারিখ সন্ধ্যা ৭টার সময় বিএমডিএ’র এসও লোকমান হোসেনের পরামর্শ ক্রমে মিস্ত্রি নিয়ে সোহেল রানা ও তার ছোট ভাই শাহিন লাইন মেরামত করতে গেলে মনিরুল ইসলাম টুনা মেম্বার ও একরাম মোড়ল এর নির্দেশে নলকুপ অপারেটর আব্দুল খাবির(৫৫), আতাউর রহমান ভদুর ছেলে জুলমাত(৩০),মৃত ইসলামের ছেলে আজিজুল(৪৫),দুরুল হোদার ছেলে বারিক উল্লাহ(১৮),মৃত এন্তাজ আলীর ছেলে আব্দুর রাকিব(৩৯) ঘটনাস্থলে সাংবাদিক সোহেল রানা ও ছোট ভাই শাহিন আলমকে মারধর শুরু করে। ঘটনায় দেখে তাদের পিতা গোলাম মোস্তফা ছেলেদের বাঁচাতে আসলে তাকেও মারধর শুরু করে। সাংবাদিক সোহেল রানা ও তার পিতা গোলাম মোস্তফা পালাতে সক্ষম হলে শাহিনে আলমকে সোহরাব আলীর ছেলে সোহবুল(৩০) ও মোকবুল হোসেনের ছেলে শহিদুল ইসলাম শাহিনকে তার বাড়ির কাছ থেকে টেনে হেঁচড়ে মির্জাপুর বাজারে কীঠনাশক ব্যবসায়ী ফারুক হোসেনের দোকানের সামনে সিমেন্টের খুঁটির সাথে পেছনে হাত করে বেঁধে লাঠি সোটা কিল ঘুষি মারতে থাকে। এক পর্যায়ে সাংবাদিক সোহেল রানা আইনি সহায়তা চেয়ে ৯৯৯ ফোন করেন। পরে নাচোল থানা পুলিশ শাহিন আলমকে ঘটনা স্থল থেকে উদ্ধার করে নিয়ে আসে। বর্তমানে শাহিন আলম নাচোল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এব্যাপারে সাংবাদিক সোহেল রানা নাচোল থানায় একটি এজাহার দাখিল করেছেন। নাচোল থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) আব্দুল ওয়াব এজাহার পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তদন্তে সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।




আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category