• রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ০১:১৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম
নাচোলে জমিজমা বিরোধের জেরে দুই ব্যাক্তিকে পিটিয়ে জখম করেছে সন্ত্রাসীরা। আহতরা রামেকে চিকিৎসাধীন রয়েছে। শাহজাদপুরে কঠোর লকডাউন অমান্য করে মেলা চালানোর দায়ে রিভার ভিউ কফি হাউজকে ১ লাখ টাকা জরিমানা ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ৩ জন ডাকাতকে দেশিয় অস্ত্রসহ হাতেনাতে আটক / স্পট গোমস্তাপুর গোমস্তাপুরে প্রস্তুতিকালে দেশীয় অস্ত্রসহ 3 জন ডাকাত আটক । বাসাইলে লকডাউনের ২য় দিনে ৮৫০০ টাকা জরিমানা গোমস্তাপুরে ঢিলেঢালাভাবে পালিত হচ্ছে লকডাউন,৪জনকে জরিমানা গলাচিপায় বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটে ঘরে আগুন, ৬ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি চোলাইমদ উদ্ধারসহ ০২ জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ঈদের নাটক “মানবিক কসাই” বদলগাছীতে যুবদলের ত্রাণ বিতরণ



কোন জেলার মেয়েরা কেমন জেনে নিন

Reporter Name / ১২৯ Time View
Update : মঙ্গলবার, ২৯ জুন, ২০২১



অনলাইন ডেস্ক:: বিয়ে করার আগে মেয়ের পক্ষ যেমন কোন জেলার ছেলে বর হিসাবে কেমন, তেমনি ছেলের পক্ষও কোন জেলার মেয়েরা বউ হিসাবে কেমন হবে, তা হিসাব-নিকাশ করে।

কোন জেলার মেয়েরা কেমন হতে পারে তার একটি সম্ভাব্য বর্ণনা নিচে দেয়া হলো। তবে এ বর্ণনা শতভাগ সত্যি হবে এমন দাবী করাটা এক ধরনের বোকামি হবে। কারণ এ ধারণার ব্যতিক্রমও হতে পারে।

যশোর-সাতক্ষীরা
মেয়েরা অনেক সুন্দরী। যশোরের মেয়েরা কুটনামিতে খুব ওস্তাদ হয়, প্রচুর মিথ্যা কথা বলে। আর শ্বশুরবাড়ীর লোকজন সহ্যই করতে পারেনা।

চট্টগ্রাম
মেয়েরা বাইরের জেলার ছেলেদের ব্যাপারে আগ্রহী নয়। কিছুটা কনজারভেটিভ।

সিলেট
মেয়েরা পর্দানশীন বেশী। সিলেটি মেয়েরা সাধারণত বাইরের জেলাতে বিয়ে করতে চায় না। আত্মীয়দের মধ্যে থাকতে পছন্দ করে। অনেকের মতে সিলেটি মেয়েরা ভাল প্রকৃতির ।

পুরান ঢাকা
মেয়েরা খুবই দিলখোশ। ঢাকার অন্য এলাকার মেয়েরা জগাখিচুড়ি (ভালো মন্দ মিলিয়ে)।

খুলনা
মেয়েরা স্বামী অন্তঃপ্রাণ। খুলনার মেয়েরা নাকি ফ্যামিলির ব্যাপারে একটু সিরিয়াস টাইপের হয়।

উত্তর বঙ্গ
মেয়েরা কোমলমতী হয় তবে বেকুব ও আনক্রিয়েটিভ বলেও কথিত আছে।

বরিশাল
মেয়েরা একটু ঝগড়াটে, ভালো রাঁধুনী, ন্যাচারাল সুন্দরী, সংসারী এবং স্বামীভক্ত।

ময়মনসিংহ
৭০ ভাগ মেয়েরা একটু বোকাসোকা অথবা সরল, বাকি ৩০ ভাগ বদমাইশ। কেউ কেউ স্মার্ট এবং ডেয়ারিং বলে নিশ্চিত হওয়া যায় ।

সিরাজগঞ্জ
মেয়েরা শান্তশিষ্ট, পতিপরায়ণ এককথায় ভালো, যদি শান্তিতে ঘর করতে চান এদের বিকল্প নেই। তবে কিছু ক্ষেত্রে অমিল হতেই পারে, যদি আপনার কপাল পোড়া হয়।

বগুড়া
মেয়েরা একটু ঝাল প্রকৃতির। এরা একটু বেশিই খোলামেলা মনের। বিয়ের আগে একটু বেশি খাই খাই স্বভাবের হলেও বিয়ের পর অল্পতেই এরা সন্তুষ্ট।

কুষ্টিয়া
এখানকার মেয়েরা একটু অহংকারী, কিন্তু সেই তুলনায় রুপবতী নয়। তবে মননশীল, রুচিসম্পন্ন। যাকে ভালবাসে সত্যিকারের ভালবাসে, কোন রাখঢাক নাই। মুখের ভাষা খুবই শুদ্ধ। শুনলে শুধু শুনতেই মন চাইবে।

বি.বাড়িয়া
মেয়েরা বেশিরভাগ ক্ষেত্রে প্রেমের সম্পর্কে ‘পলটিবাজ’ কিন্তু বিয়ের পর পতিভক্ত ও সংসারী। অনেক মিশুক।

রাজশাহী
মেয়েরা একটু লাজুক। অনেক সুন্দর করে কথা বলে। বিয়ের পর সবাইকে মুগ্ধ করে রাখতে এরা ভীষণ ওস্তাদ ।

পাবনা
মেয়েরা বিয়ের আগে খুব কুটনা প্রকৃতির হয়ে থাকে। তবে এরা খুব সাংসারিক, যৌথ পরিবারে সবাইকে বেশ আপন করে নিতে পারে। অনেক ক্ষেত্রে বেশ পরিশ্রমীও এরা ।

জামালপুর
এই জেলায় সুন্দরীদের ঘনত্ব বেশি। মেয়েরা বেশি স্মার্ট এবং ডেয়ারিং।

নোয়াখালী
বাবা- মা অথবা আত্মীয়-স্বজনদেরকে ভুলতে চাইলে নোয়াখালীর মেয়েদের তুলনা নেই। বেশিরভাগ মেয়ে কারো কথার নিচে থাকতে চাইনা। এরা চরম ঝগরাটে স্বভাবের হয়। তবে তারা শ্বশুরবাড়ির জন্য করতে চাইলে নিজের সব দিয়ে করে, না করলে নাই!

ফরিদপুর
মেয়েরা চোরা স্বভাবের। সমালোচনা আছে, তারা কথা বলে কম, ওদের মতো কুটিল প্যাঁচের মানুষ খুব কমই হয়।

কুমিল্লা
মেয়েরা শ্বশুরবাড়ির মানুষদের পছন্দ করেনা। কুমিল্লার মেয়েরা সুন্দরী, অনেক দায়িত্বশীল, তবে সংসারে প্রভাব বিস্তার করতে বেশি পছন্দ করে।

টাংগাইল
মেয়েরা খুব ভাল হয়, বান্ধবী হিসেবেতো বটেই, পাত্রী হিসেবেও। একটু দিলখোলা টাইপের।

মাদারীপুর
মেয়েরা খুবই কিউট, খুব খরচে, জামাইয়ের পকেট ফাঁকা করতে ওস্তাদ। তবে সব টাকা জমিয়ে রাখে সংসারের জন্যই ।

চাঁদপুর
মেয়েরা মানুষ হিসেবে খুবই ভালো, অথিতিপরায়ণ। তাদের সরল ভালবাসায় আপনি মুগ্ধ হবেন। আর শ্বশুরবাড়ী চাঁদপুর হলে ইলিশ নিয়ে চিন্তা করতে হবে না। আর আসল কথা হলো চাঁদপুরের লোকের মাথায় প্যাঁচ জিলাপীর থেকেও বেশী। চাঁদপুরের মেয়েরা ছেলে ঘুরাতে ওস্তাদ।

দিনাজপুর
মেয়েরা খুব সুন্দরী হয়। তবে এরা বেশি সাজগোজ পছন্দ করেনা, ন্যাচারাল বিউটি এদের মধ্যেই। মুখ বুঁজে সব সহ্য করার মতো মেয়েদের এই জেলাতেই আধিক্য।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ
মেয়েরা সরল মনের অধিকারী।

গাজীপুর
মেয়েরা খুবই ভাল, মিশুক এবং রসিক। এখানকার মেয়েরা জেদী, লাজুক, মিডিয়াম সুন্দর, মিডিয়াম স্মার্ট এবং সংস্কৃতিমনা।

নরসিংদী
মেয়েরা উড়ালপঙ্খীর মতো। তাদের মন আর চলার ঢং আকাশের রংয়ের মতো বদলায়।

কিশোরগঞ্জ
মেয়েরা একটু বোকাসোকা। তবে মিশুক, বন্ধুপাগল বা বন্ধুপ্রেমী হয়। স্বামীভক্ত হয় তবে কিছু ক্ষেত্রে বোকামি কাটিয়ে অতিচালাক হয়ে এমনও হতে পারে যে সারাজীবন বউয়ের দ্বারা নিগৃহীত হওয়া অসম্ভব কিছু না।

নারায়ণগঞ্জ
মেয়েরা সাধারণত তারা কি চাই তারা নিজেরাও জানে না।

মুন্সিগঞ্জ
মেয়েরা একটু বেশি বেশি প্রেমে আগ্রহী, ভালো কিছু পাওয়ার সম্ভাবনা কম। তবে এরা খুব বুদ্ধিমতী। এখানকার মেয়ারা প্রফেশনাল লাইফে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই সাইন করে।

ভোলা
মেয়েরা সহজ, সরল, কথা একটু বেশি বলে। প্রেম জীবনে করলে একটাই করে। চেহারা সুন্দর হয়। সততা খুব বেশি।

কক্সবাজার
কক্সবাজারের মেয়েদের চেহারায় একটু চাকমা ভাব আছে। তারা মঙ্গল গ্রহের ভাষায় কথা বলে, তবে দিল পরিষ্কার! (ইন্টারনেট থেকে সংগৃহীত)




আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category