নাচালে সরকারি গাছ কাটার অভিযোগ

প্রকাশিত: ৭:২০ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৭, ২০২০

নাচালে সরকারি গাছ কাটার অভিযোগ

চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোলে সরকারি খাস পুকুর পাড়ের গাছ কাটার অভিযোগ উঠেছে। নাচোল উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের আমলাইন গ্রামের একটি সরকারি পুকুর পাড়ের চারদিকে ৬টি বড় আমাগাছ কাটা হয়েছে। উপজেলা ভূমি অফিস থেকে সরকারি পুকুরটির ইজারাদার একই গ্রামের আব্দুল হান্নানের ছেলে মো. আবু সুফিয়ান ও স্থানীয়রা জানায়, শনিবার ও রবিবার ২ দিনে পুকুর পাড়ের মোট ৯টি গাছের মধ্যে ৬টি আমগাছ কেটে নেয়া হয়েছে। পরে স্থানীয়রা রবিবার বিকেলে গাছ কাটতে বাধা দিলে নাচোল থানার অফিসার-ইন-চার্জ (ওসি) মো. সেলিম রেজা সমাধান না হওয়া পর্যন্ত গাছ কাটা ও নিয়ে যাওয়া বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন।

জানা যায়, সদর উপজেলার গোবরাতলা ইউনিয়নের সরজন এলাকার তবজুল মুক্তারের ছেলে মো. বেলাল ও তার ভাই হেলাল পুকুর পাড়ের ৯টি সহ সর্বমোট ১৮টি গাছ ২৫ হাজার টাকায় সদর উপজেলার মহিপুর গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে আব্দুল্লাহর কাছে বিক্রি করে। গাছ ক্রেতা আব্দুল্লাহ বলেন, আমি না জেনে ২৫ হাজার টাকায় গাছগুলো কিনে নিয়েছি। ওসি স্যার আমাকে মানা করলো, তাই সমাধান না পর্যন্ত কোন গাছ কাটবো না।

এবিষয়ে অভিযুক্ত হেলাল মুঠোফোনে জানান, আমি গাছ কাটবো, সরকারের যা করার করবে। এসময় গাছ কেটে পুকুরটি ভরাট করারও হুমকি দেয় তিনি।

নাচোল উপজেলা ভূমি অফিসের সার্ভেয়ার মাহমুদুল হাসান মুঠোফোনে জানান, পুকুরটি ১নং খাস খতিয়ানভুক্ত। তাই একজনকে ইজারা দেয়া হয়েছে।

নাচোল থানার অফিসার-ইন-চার্জ (ওসি) মো. সেলিম রেজা বলেন, সমাধান না হওয়ার আগে গাছ কাটার বিষয়টি সেভাবেই রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।