প্রধানমন্ত্রী ও জেলাবাসীকে কৃতজ্ঞতা জানালেন সাবেক এমপি আব্দুল ওদুদ

Rubel Rubel

Islam

প্রকাশিত: ১০:১৪ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ২৪, ২০২১

ফারুক আহাম্মেদ:
শনিবার (২৩ জানুয়ারী) সকালে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সারাদেশের ৬৬ হাজার ১’শ ৮৯টি পরিবারের নিকট নবনির্মিত বাসগৃহ হস্তান্তরের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে প্রধানমন্ত্রী সারাদেশের ৪টি জেলার সাথে সুবিধাভোগী ও স্থানীয়দের সাথে ভিডিও কনফারেন্সে কথা বলেছেন। এরমধ্যে আমের রাজধানীখ্যাত চাঁপাইনবাবগঞ্জ ছিলো অন্যতম। চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১ হাজার ৩’শ ১৯টি অসহায়, গৃহহীন পরিবারের নিকট বাড়ির চাবি ও জমির দলিল বুঝিয়ে দেয়া হয়। সদর উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা ইউনিয়নের মানপুর-সল্লায় সরাসরি ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে এসব হস্তান্তরের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। এসময় জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও একজন সুবিধাভোগীর সাথে কথা বলেন তিনি। ভিডিও কনফারেন্সে জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ (সদর) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল ওদুদ প্রধানমন্ত্রীর নিকট জেলার তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠী ও হরিজনদের পূর্ণবাসন ও সহায়তা প্রদানের আহ্বান জানান। জবাবে হিজরা ও হরিজন সম্প্রদায়কে পূর্ণবাসন ও সহযোগিতা করার প্রতিশ্রুতি দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এর আগে শনিবার শীতের সকালে কুয়াশা ও হিমশীতল ঠান্ডা আবহাওয়া উপেক্ষা করে জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক এমপি আব্দুল ওদুদের ডাকে সাড়া দিয়ে দলে দলে বিভিন্ন স্থান থেকে প্রকল্পস্থলে আসতে থাকে বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হওয়ার আগেই আশ্রয়ণ প্রকল্পের স্থান, পুকুর পাড় ও আশেপাশের বিস্তৃর্ণ জায়গায় জড়ো হয় উৎসুক জনতা। পরিস্থিতি এমন, যেন তিল ধারনের থাঁয় নেয়। শীতের সাত সকালে কুয়াশা ভেদ করে জনসাধারণের এমন উপস্থিতি এবং প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতিতে জেলাবাসী ও প্রধানমন্ত্রীকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওদুদ। এক বার্তায় তিনি বলেন, দীর্ঘদিনের কাঙ্ক্ষিত চাহিদা পূরনে জেলাবাসীকে আশ্বাস দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা। আমরা জানি, তিনি যায় বলেন, দেশের ও দেশের মানুষের জন্য শত বাধা উপেক্ষা করে তাই করেন। তাই আমরা ধরেই নিয়েছি তার প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন হওয়া এখন সময়ের ব্যাপার।

উল্লেখ্য, মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার হিসেবে প্রত্যেকটি লাল-সবুজের স্বপ্নের নীড়ে রয়েছে ২টি ঘর, একটি রান্না ঘর, টয়লেটসহ পানি, বিদ্যুতের সকল সুবিধা। জেলার সদর উপজেলায় ১৩০, শিবগঞ্জে ৭৩৭, গোমস্তাপুরে ৯৫, নাচোলে ২০০ এবং ভোলাহাটে ১৭৫টি গৃহহীন পরিবার ঠাঁই পেয়েছে। এছাড়াও রাজশাহী বিভাগের ৬৭ উপজেলায় ৭ হাজার ৫৯ টি বাসগৃহ প্রদান করা হয়েছে। হস্তান্তরের সময় লাল-সবুজের নীড় উপহার পাওয়া উপকারভোগী পরিবারগুলো ব্যাপক আনন্দ প্রকাশ করেন।